গুগলকে ২২০ মিলিয়ন ইউরো জরিমানা


প্রকাশিত:
৮ জুন ২০২১ ০৩:২৪

আপডেট:
১৮ জুন ২০২১ ০০:০৭

ফাইল ফটো

অনলাইনে বিজ্ঞাপন আধিপত্যের কারণে গুগলকে ২২০ মিলিয়ন ইউরো জরিমানা করেছে ফ্রান্স। দেশটির প্রতিযোগিতা নিয়ন্ত্রক সংস্থা (কম্পিটিশন রেগুলেটর) সোমবার এই জরিমানা করে।

নিউজ করপোরেশন, একটি ফরাসি দৈনিক এবং বেলজিয়ামের গ্রুপ রোসেল গুগলের বিরুদ্ধে তাদের ওয়েবসাইট এবং অ্যাপের বিজ্ঞাপন বিক্রির ওপর কার্যকরভাবে একচেটিয়া আধিপত্য রাখার অভিযোগ আনে। শুনানিতে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় গুগলকে জরিমানা করে সংস্থাটি।

প্রতিযোগিতা কর্তৃপক্ষ নির্ধারণ করে, গুগল তার নিজস্ব বিজ্ঞাপন ইনভেন্টরি নিলাম পরিষেবা অ্যাডএক্স এবং ক্লায়েন্টদের বিজ্ঞাপন চয়ন এবং কিনতে দেওয়ার জন্য তার রিয়েল-টাইম প্ল্যাটফর্ম অ্যাড এক্সচেঞ্জকে ডাবলক্লিক করার জন্য অগ্রাধিকার দিয়েছে।

কর্তৃপক্ষের সভাপতি ইসাবেল ডি সিলভা বলেন, এটা নিলামের জন্য জটিল অ্যালগরিদমিক প্রক্রিয়া যাচাই করা বিশ্বের প্রথম রায়।

প্রতিদ্বন্দ্বী প্ল্যাটফর্ম ব্যবহার করে ইন্টারনেট সাইট বা মোবাইল অ্যাপ্লিকেশনগুলিতে বিজ্ঞাপনের জায়গা বিক্রি করতে চাওয়া মিডিয়া গ্রুপগুলি প্রায়শই দেখতে পায় যে গুগলের পরিষেবাগুলি বিভিন্ন পদ্ধতি ব্যবহার করে অন্যায়ভাবে প্রতিদ্বন্দ্বীদের বিরুদ্ধে প্রতিযোগিতা করছে।

নিয়ন্ত্রকরা দেখেছেন, ডাবলক্লিক অন্য তথাকথিত বিজ্ঞাপন সার্ভারের দেওয়া দামের ভিত্তিতে বিক্রয় করার সময় নেওয়া কমিশন ভিন্ন হতে পারে।

একই সময়ে গুগল তার নিজস্ব সাপ্লাই-সাইড প্ল্যাটফর্ম (এসএসপি) অ্যাডএক্সের অফারগুলোকে অগ্রাধিকার দেয়, যা অন্য প্রতিযোগীদের ঠেকিয়ে দেয়।

নিয়ন্ত্রক সংস্থা এক বিবৃতিতে বলেছে, এই চর্চা বিশেষভাবে গুরুতর, কারণ গুগল তার প্রতিযোগীদের ক্ষতির মুখে ফেলছে।

এতে বলা হয়েছে, গণমাধ্যমগুলো দেখেছে, তাদের অনলাইন বিজ্ঞাপনের আয় কমে গেছে, কাগজের গ্রাহক কমেছে। ফলে তারা ব্যবসায়িকভাবে ক্ষতির মুখে।

তবে গুগল নিয়ন্ত্রক সংস্থার সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেনি। গুগল তার বিজ্ঞাপন প্রদর্শনের ক্ষেত্রে অপারেশনাল পরিবর্তন আনার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে বলে জানিয়েছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা।

গুগল ফ্রান্সের আইনি পরিচালক মারিয়া গোমরি এক বিবৃতিতে বলেন, পরিবর্তনগুলো প্রয়োগ করার আগে পরীক্ষা-নিরীক্ষার মাধ্যমে উন্নয়ন করা হচ্ছে।

এই জরিমানা শুধু এ বছরের প্রথম ত্রৈমাসিকে গুগলের অনলাইন বিজ্ঞাপন থেকে ৫৫ বিলিয়ন ডলার আয়ের একটি ক্ষুদ্র অংশ।



বিষয়:


আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top