৪৭ ভাষায় কথা বলা রোবট বানিয়েছে ভারতের শিক্ষক


প্রকাশিত:
১৩ মার্চ ২০২১ ০২:০৭

আপডেট:
১৯ এপ্রিল ২০২১ ০৩:০৭

রোবটের সঙ্গে শিক্ষক দীনেশ প্যাটেল

হংকংয়ের হ্যানসন রোবটিকসের বানানো যন্ত্রমানবী সোফিয়া কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার কল্যাণে মানুষের নানা প্রশ্নের জবাব দিয়ে তাক লাগিয়ে দিয়েছে। এবার ভারতের একজন শিক্ষক সোফিয়ার আদলে রোবট বানিয়েছেন। ‘শালু’ নামে এ রোবটের বৈশিষ্ট্য, এটি একাধারে ৪৭ ভাষায় কথা বলতে পারে। এটি বানাতে খরচও হয়েছে অল্প।

মুম্বাই আইআইটির কেন্দ্রীয় বিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্সের শিক্ষক দীনেশ প্যাটেল। বসবাস করেন উত্তর প্রদেশের জৈনপুর জেলার রাজমালপুর গ্রামে। বলিউডের সিনেমা ‘রোবট’ দেখে অনুপ্রাণিত হয়ে সেখানেই রোবট বানানোর কাজ শুরু করেন। তিন বছরের চেষ্টায় সফলতা মিলেছে। দীনেশের বানানো রোবট শালু কথা বলছে ৪৭টি ভাষায়। এর মধ্যে ৯টি ভারতের স্থানীয় ভাষা। বাকি ৩৮টি বিদেশি ভাষা।

শুধু কি তাই, শালু সাধারণ জ্ঞানের প্রশ্নের উত্তর দিতে পারে। সংবাদপত্র পড়তে পারে। অঙ্ক কষতে পারে। যে কারও পরিচয় শনাক্ত করা, পুরোনো ঘটনা মনে করতে পারা, কাউকে সম্ভাষণ জানানোসহ নানা কাজ করতে সক্ষম শালু। রোবটটিকে অনায়াসে স্কুলশিক্ষক কিংবা অফিসে অভ্যর্থনাকারীর কাজে ব্যবহার করা যাবে—বলেন দীনেশ প্যাটেল।

দীনেশ বার্তা সংস্থা আইএএনএসকে জানান, ফেলে দেওয়া জিনিস দিয়ে শালুকে বানানো হয়েছে। পরিত্যক্ত প্লাস্টিক, কার্ডবোর্ড, কাঠের টুকরা, অ্যালুমিনিয়ামসহ বিভিন্ন উপকরণ ব্যবহার করা হয়েছে এটা বানাতে। খরচ হয়েছে মাত্র ৫০ হাজার রুপি। এখন এটির সৌন্দর্য বাড়ানোর চেষ্টা করা হচ্ছে।

দীনেশের এ প্রচেষ্টার প্রশংসা করেন মুম্বাই আইআইটির কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক সুপ্রতীক চক্রবর্তী।



বিষয়:


আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top